শিরোনাম
প্রথম পাতা / সিলেট / কুলাউড়ায় খাসিয়াপুঞ্জিতে হামলা, আহত ১০

কুলাউড়ায় খাসিয়াপুঞ্জিতে হামলা, আহত ১০

আচিক নিউজ ডেস্ক : কুলাউড়ার নুনছড়া খাসিয়াপুঞ্জির পানের জুম দখলকে কেন্দ্র করে সশস্ত্র হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে । এতে খাসিয়া সম্প্রদায়েরর অন্তত ১০ জন নারী-পুরুষ আহত হয়েছেন। এর মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ৪ জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) ভোরে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে, ঘটনার পর নুনছড়া খাসিয়া পুঞ্জির হেডম্যান ববরিন খাসিয়া ১১ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করেছেন।

মামলায় আসামিরা হচ্ছে- কর্মধা ইউপির নলডরি গ্রামের লিটন মিয়া, পূর্ব ফটিগুলি গ্রামের এলাইছ মিয়া, ফজলু মিয়া, নলডরি গ্রামের দুলন মিয়া, জাভেদ মিয়া, ফটিগুলি গ্রামের ফরজান আলী, নলডরি গ্রামের রাশিদ মিয়া, আসগরাবাদ গ্রামের পিলু মিয়া, পূর্ব ফটিগুলি গ্রামের অকিল, মনসুর মিয়া, রেনু মিয়া সহ ১৫-১৬ জন।

মামলার এজাহারে নুনছড়া খাসিয়া পুঞ্জির হেডম্যান ববরিন খাসিয়া জানিয়েছেন- ‘তিনি একজন পানচাষী। নিজ বাগানেই পান চাষ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। কিন্তু স্থানীয় বন বিভাগের জমির দোহাই দিয়ে স্থানীয় একদল সন্ত্রাসী পানপুঞ্জি দখলে নেওয়ার চেষ্টা চালায়। প্রায় সময় রাতের আধারে ওই চক্র পান গাছ কেটে নিয়ে যায়। এদিকে- জমির মালিকানা নিয়ে বন বিভাগের সঙ্গে দ্বন্দ্ব দেখা দেওয়ায় খাসিয়াদের পক্ষ থেকে জমির মালিকানা দাবি করে আদালতে সত্ব মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় প্রথম রায় খাসিয়াদের পক্ষে আসার পর বন বিভাগের পক্ষ থেকে আপীল করা হলে সে রায়ও খাসিয়াদের পক্ষে আসে।’

এদিকে, শনিবার ভোররাতে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা লিটন মিয়া, এলাইছ মিয়া, ফজলু মিয়া সহ কয়েকজনের নেতৃত্বে সশস্ত্র অবস্থায় নুনছড়া পুঞ্জিতে হামলা চালানো হয়। এ সময় তারা অবাধে গাছ কর্তন সহ পান জুমের ক্ষতি সাধান শুরু করে। এক পর্যায়ে সংখ্যালঘু খাসিয়া সম্প্রাদায়ের লোকজন নিজেদের জমি ও পানজুম রক্ষায় প্রতিরোধ গড়ে তুললে তারা দা, রামদা, লোহার রড দিয়ে খাসিয়াদের মারধর শুরু করে। দলবেধে তারা মারধর করলে দা, রামদা ও লোহার রডের আঘাতের গুরুতর আহত হন পুঞ্জির রবেট মারচিয়াং, পালাং, রিশন বারেক, শাহিন আহমদ সহ কয়েকজন। হামলার পর গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের প্রথমে কুলাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরবর্তীতে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে দুই জনের অবস্থা এখনো আশঙ্কাজনক।

হামলার ঘটনায় রোববার হেডম্যান ববরিন খাসিয়া বাদি হয়ে মামলা দায়ের করলেও পুলিশ সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। হেডম্যান ববরিন খাসিয়া জানিয়েছেন- হামলার ঘটনার পর থেকে সন্ত্রাসীরা তাদের বাগানে ঢুকতে দিচ্ছে না। এতে করে প্রায় ১৫ লাখ টাকার পান পচে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। এখনো সন্ত্রাসীরা সশস্ত্র মহড়া দিচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি। এ ব্যাপারে তিনি পুলিশ প্রশাসনের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেছেন।

– সিলেট ভয়েস

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email

Материалы по теме:

কুলাউড়ায় জুমের গাছ ও পানগাছ কেটে দিল চা বাগান কর্তৃপক্ষ ঃ জীবিকার একমাত্র অবলম্বন হারিয়ে দিশেহারা স্থানীয় আদিবাসীরা
নিজস্ব প্রতিবেদক  ঃ মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার খাগড়াছড়া খাসি ও গারো পুঞ্জিতে গারো ও খাসিদের অন্যতম আয়ের উৎস জুমের পানগাছসহ জুমের বাগানি গাছ কেটে ফেলার ...
হারিয়ে যেতে বসেছে চা শ্রমিক জনগোষ্ঠীর ভাষা দেশওয়ারি
আচিক নিউজ ডেস্ক : অবহেলা আর সংরক্ষণের অভাবে হারিয়ে যেতে বসেছে সিলেট অঞ্চলের ক্ষুদ্র নৃতাত্বিক চা শ্রমিক জনগোষ্ঠীর ভাষা দেশওয়ারি। সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন চা বাগানে ...
কুলাউড়ার ঝিমাই পুঞ্জিতে অবরুদ্ধ ৭২টি খাসিয়া পরিবার
আচিক নিউজ ডেস্কঃ মৌলভী বাজারের কুলাউড়া উপজেলার ঝিমাই পুঞ্জি’র (খাসিয়া আদিবাসীদের গ্রাম) জমি দখলের উদ্দেশ্যে ঝিমাই চা বাগান কর্তৃপক্ষ পুঞ্জির  ৭২ টি খাসিয়া পরিবারকে ...

এক নজরে

ফা: লিন্টু আলফ্রেড আরেং এর যাজকীয় অভিষেক

আচিক নিউজ ডেস্ক : সুনামগঞ্জের মুগাইপাড় মিশনে ১০ জানুয়ারী শুক্রবার যাজক হিসাবে অভিক্ত হলেন ফা: …

error: Content is protected !!