শিরোনাম
প্রথম পাতা / আন্তর্জাতিক / ফাদার ইউজিন হোমরিক সিএসসি আর নেই !

ফাদার ইউজিন হোমরিক সিএসসি আর নেই !

আচিক নিউজ ডেস্ক : ফাদার ইউজিন হোমরিক সিএসসি গতকাল যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় রাত ১০ টায় মৃত্যুবরণ করেন । করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তিনি চিকিৎসাধীন ছিলেন । মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯২ বছর।

ফাদার হোমরিক দীর্ঘ প্রায় ৬০ বছরেরও বেশী সময়  টাঙ্গাইল মধুপুর অঞ্চলে খ্রিষ্টধর্ম প্রচারের পাশাপাশি মধুপুরের মানুষের জন্য ধর্ম-বর্ন নির্বিশেষে স্বাস্থ, শিক্ষাসহ নানাবিধ সহযোগিতা করে গেছেন । ২০১৬ সালে তিনি নিজ দেশ যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান।

যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানে ১৯২৮ খ্রিস্টাব্দে ৮ ডিসেম্বর জন্ম গ্রহণ করেন  ফা: ইউজিন হোমরিক সিএসসি । তার পিতা বেনাবদ হোমারিক জার্মান বংশদ্ভুত এবং মা এলা ভালই কানাডিয়ান । তিনি আমেরিকার ইন্ডিয়ানা স্টেটের নটরডেম ইউনিভার্সিটির ছাত্র ছিলেন । ওয়াশিংটন হলিক্রশ কলেজেই তিনি বাংলা ভাষা আয়ত্ব করেন ।

তিনি ১৯৫৫ খ্রি. ২২ সেপ্টেম্বর পুর্ব পাকিস্তানের ঢাকার নবাবগঞ্জে গোল্লা মিশনে প্রৈরেতিক কাজ শুরু করেন এবং ১৯৫৯ খ্রি. গারো অধ্যুষিত মধুপুরে আসেন এবং জলছত্র কর্পোস খ্রিষ্টি ধর্মপল্লীতে ধর্মপ্রচারের পাশাপাশি শিক্ষা, চিকিৎসা এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টি করেন । ১৯৯৩ খ্রি. তিনি পীরগাছা সেন্ট পৌল ধর্মপল্লী প্রতিষ্ঠা করে সেখানেও শিক্ষা ও চিকিৎসা সেবার ব্যবস্থা করেন । গারো কৃস্টি, সংস্কৃতি রক্ষায় তার অবদান অনস্বীকার্য । তিনি গারো ভাষায় ধর্মীয় গানের বই প্রকাশসহ সংস্কৃতিকে টিকিয়ে রাখার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেন ।

১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে ফাদার হোমরিক মধুপুরের মুক্তিকামী মানুষকে আশ্রয় দেন এবং পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর অত্যাচারের হাত থেকে রক্ষা করেন । মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসাসহ বিভিন্ন সহযোগিতা করায় যুদ্ধের পর তাঁকে মুক্তিযোদ্ধার সনদ দেওয়া হয় এবং বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের অনন্য সাধারন অবদানের জন্য বাঙ্গালী জাতির শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা স্বরুপ ‘মুক্তিযুদ্ধ মৈত্রী সন্মাননা’ প্রদান করা হয় ।

ফাদার হোমরিক  দীর্ঘ ৬০ বছরেরও বেশী সময় মধুপুরের মানুষের জন্য ধর্ম-বর্ন নির্বিশেষে স্বাস্থ, শিক্ষা সহ নানাবিধ সহযোগিতা করে গেছেন । কয়েকদিন ধরে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অত্যন্ত আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসারত ছিলেন তিনি । গতকাল তিনি না ফেরার দেশে চলে গেলেন । আচিক নিউজ পরিবার গভীর শ্রদ্ধার সাথে শোক প্রকাশ করছি  এবং তার আত্নার চির শান্তিকামনা করছি ।

Facebook Comments

এক নজরে

আমরা কি আদিবাসী পরিচয় দিতে পারি?

মিকরাক ম্রং সোহেল : আদিবাসী পরিচয়ের জন্য আমরা অনেকদিন ধরে দাবি করে আসছি। মিছিল, মানববন্ধন, সমাবেশ, …

error: Content is protected !!