শিরোনাম
প্রথম পাতা / আদিবাসী / ৩১ জানুয়ারী হাজং মাতা রাশিমনি মেলা

৩১ জানুয়ারী হাজং মাতা রাশিমনি মেলা

আচিক নিউজ ডেস্ক: টংক ও কৃষক আন্দোলনসহ তেভাগা আন্দোলনের প্রথিকৃৎ হাজংমাতা রাশিমনি স্মরণে গারো পাহাড়ের পাদদেশে হাজং মাতা রাশিমনি মেলা ২০২০ আগামী ৩১ জানুয়ারী শুরু হবে ।

নেত্রকোনা জেলার দূর্গাপুরের বহেড়াতলী গ্রামে হাজং মাতা রাশিমনি স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণে ৩১ জানুয়ারি রাশিমনির মৃত্যুবার্ষিকী পালন উপলক্ষ্যে  ৭ দিনব্যাপী এ মেলার আয়োজন করছে বাংলাদেশ হাজং ছাত্র সংগঠন (বাহাছাস) কেন্দ্রীয় পরিষদ ও ঢাকা মহানগর শাখা । এই মেলা চলবে  ৬ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত ।

হাজং মাতা রাশিমনি

উল্লেখ্য, বিংশ শতাব্দীর তৃতীয় দশকে সামন্ত সমাজের প্রতিভূ জমিদার কর্তৃক ‘টংক’ নামক এক বিশেষ কর বা খাজনা আরোপ করা হয় হাজং কৃষকদের উপর। এই টংক প্রথার বিরোদ্ধে সোচ্চার প্রতিবাদ এবং পরবর্তীতে আন্দোলনে ঝাপিয়ে পড়ে হাজং জনগোষ্ঠী। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে এই টংক আন্দোলন ব্যাপক আকারে রুপ ধারণ করে মুক্তির লক্ষ্যে বিপ্লবে জাপিয়ে পরে হাজংরা। ১৯৪৫ সালের সারা ভারত কৃষক আন্দোলন এ সংগ্রামকে বেগবান করতে ত্বরান্বিত করেছিল। ১৯৪৬ সালের ৩১ জানুয়ারি আন্দোলনকারীদের ধরতে বহেরাতুলি গ্রামে তল্লাশি চালায় পুলিশ। ১৭ বছর বয়সী নব্যবিবাহিত কুমুদিনী হাজংকে ধরে নিয়ে যাওয়ার সময় হাজং মাতা রাশিমণি এসে পথরোধ করে। দুই পুলিশকে হত্যা করে কুমোদিনী হাজংকে উদ্ধার করলেও ইর্স্টান ফ্রন্টিয়ার পুলিশ বাহিনীর গুলিতে শহীদ হন  হাজং মাতা রাশিমণি ।পরবর্তীতে ২০০৪ সালে রাশিমনি হাজং স্মরনে স্মৃতিসৌধ নির্মান করা হয়।

Facebook Comments

এক নজরে

ময়মনসিংহে সংবাদ সম্মেলনে ১১ দফা বাস্তবায়নের দাবি

আচিক নিউজ ডেস্ক: আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস উদযাপন উপলক্ষে ১১ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে ময়মনসিংহে সংবাদ সম্মেলন …

error: Content is protected !!